Breaking News
Home / Uncategorized / প্রথমবার ধর্ষণের পর লজ্জা আর ভয়ে কাউকে না জানালেও এবার ঘুরে দাড়ালো স্কুলপড়ুয়া কিশোরী !

প্রথমবার ধর্ষণের পর লজ্জা আর ভয়ে কাউকে না জানালেও এবার ঘুরে দাড়ালো স্কুলপড়ুয়া কিশোরী !

স্কুল পড়ুয়া কিশোরীর উপরে কু-নজর পড়েছিলো প্রতিবেশি বখাটে দুই যুবকের। সেই টার্গেট থেকে প্রথমে প্রেম পরবর্তিতে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে নানা কৌশলে কিশোরীর মন জয় করে এক যুবক।‘একটু দেরিতে হলেও বুঝেছে কিশোরী, নাহ, এ লজ্জা তার নয়, বরং ধর্ষণকারীদেরই । ওদের শাস্তি না দিলে এভাবেই তার মত ক্ষতিগ্রস্থ হবে আরও অনেকে । প্রথমবার ধর্ষণের ভিডিও ইন্টারনেটে ছেড়ে দেবার ভয় দেখিয়ে গত সাতমাস ধরে ফের কয়েকদফায় কিশোরীকে ধর্ষণ করেছে প্রতিবেশি দুই বখাটে। অবশেষে ভয়কে দূর করে অন্যায়ের বিরুদ্ধে মুখ খুলে প্রতিবাদি হয়েছেন স্কুলপড়ুয়া ঐ কিশোরী। তার অভিযোগে আটক হয়েছে দুজন অভিযুক্ত লম্পট…

দুই বখাটের পুর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী দেখা করার কথা বলে তথাকথিত প্রেমিক যুবক কিশোরীকে নিয়ে যায় একটি নির্জন বাড়িতে। সেখানে আগে থেকে অপেক্ষমান বখাটেসহ দুই যুবক মিলে কিশোরীকে জোরপুর্বক ধর্ষণ করে কয়েকদফা। কিশোরীর ভাষ্য অনুযায়ী, ” ঐ বাড়িতে পৌছাবার পর হুট করেই ভয়ংকর রুপে সামনে আসে তথাকথিত প্রেমিক! তার আর্তচিতকার, কান্না কিছুই গলাতে পারেনি পাষণ্ড প্রেমিকের মন। বরং সাথে থাকা বন্ধুকে নিয়ে তাকে ধর্ষণের সময় উল্লাস করছিলো দুজনেই। ধর্ষণের সময়কার ভিডিও নিজের মোবাইলে ধারন করে রাখে বখাটেরা। ‘ দিনভর মুখবেধে ধর্ষণের পর কিশোরীকে হুমকি দিয়ে ঐ দুই বখাটে জানিয়ে দেয়, কাউকে জানালেই ধর্ষণের ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেবে তারা। এমনকি কিশোরীকে হত্যার হুমকিও দেয়্ তারা।

লজ্জা, অপমান, ভয় আর শরীরে ক্ষত নিয়ে বাড়িতে ফিরে আসে কিশোরী। লোকলজ্জার ভয়ে কাউকে এমনকি নিজের পরিবারকেও ঘটনাটি জানায়নি কিশোরী। এরপর কেটে গেছে প্রায় সাতমাস । সামাজিক লজ্জার ভয়ে প্রথমবারে ঘটনাটি কিশোরী কাউকেই না জানানোর বিষয়টিকে দুর্বলতা হিসেবে ধরে নেয় দুই বখাটে।লজ্জা, অপমান, ভয় আর শরীরে ক্ষত নিয়ে বাড়িতে ফিরে আসে কিশোরী। লোকলজ্জার ভয়ে কাউকে এমনকি নিজের পরিবারকেও ঘটনাটি জানায়নি কিশোরী। এরপর কেটে গেছে প্রায় সাতমাস । সামাজিক লজ্জার ভয়ে প্রথমবারে ঘটনাটি কিশোরী কাউকেই না জানানোর বিষয়টিকে দুর্বলতা হিসেবে ধরে নেয় দুই বখাটে।

পরবর্তীতে বিভিন্ন সময়ে ঐ দুই বখাটে ধর্ষণের সময়কালীন ভিডিও থেকে কিশোরীর নগ্ন ছবি ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেয়ার ভয় দেখিয়ে বিভিন্ন জায়গায় দেখা করতে বাধ্য করে। এভাবেই গত সাত মাস ধরে ১৭ বছর বয়সী ঐ কিশোরীকে বেশ কয়েকদফা ধর্ষণ করে দুই বখাটে । অবশেষে ‘নিজের ভুল’ বুঝতে পেরে এ দফায় প্রতিবাদি হয়ে ঘুরে দাড়িয়েছে কিশোরী । প্রথমে পরিবার ও পরে পুলিশের সহায়তায় গ্রেফতার করিয়েছে অভিযুক্ত দুই বখাটে যুবককে।ঘটনাটি খাগড়াছড়ি জেলার মাটিরাঙ্গা পৌর এলাকার।এ ঘটনায় মাটিরাঙ্গার কাঁঠালপাড়ার হানিফ হাওলাদারের ছেলে রেজাউল করিম হাওলাদার (৩৭) ও একই এলাকার জামাল উদ্দিনের ছেলে মো. সাবু মিয়াকে (৩৮) গ্রেফতারের পর তিন দিনের রিমান্ডে নিয়েছে পুলিশ।বর্তমানে ধর্ষণের শিকার ওই কিশোরীকে খাগড়াছড়ি জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

৮ নভেম্বর মঙ্গলবার দুপুরে গ্রেফতার দুই আসামিকে খাগড়াছড়ি সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আবু সুফিয়ান মো. নোমানের আদালতে হাজির করে পাঁচদিন করে রিমান্ডের আবেদন করলে আদালত তাদের তিন দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন।খাগড়াছড়ি কোর্ট ইন্সপেক্টর মো. শফিকুল ইসলাম রিমান্ড মঞ্জুরের বিষয়টি নিশ্চিত করে সময়ের কণ্ঠস্বরকে জানান, মোবাইলে ধারণ করা ভিডিও ফুটেজটি উদ্ধার করার জন্য তাদের রিমান্ডে নেয়া হয়েছে।

মাটিরাঙ্গা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সাহাদত হোসেন টিটো ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে সময়ের কণ্ঠস্বরকে বলেন, ”মাটিরাঙ্গা পৌরসভায় এক কিশোরীকে প্রতিবেশী রেজাউল করিম হাওলাদার ও সাবু মিয়া নানা প্রলোভন দেখিয়ে আপত্তিকর ভিডিও ধারণ করে। পরে ওই ভিডিওটি ছড়িয়ে দেয়ার হুমকি দিয়ে ওই কিশোরীকে গত সাত মাস ধরে দফায় দফায় ধর্ষণ করে তারা।সর্বশেষ সোমবার বিকেলে তাকে ডেকে নিয়ে অভিযুক্ত দুইজন অনৈতিক কাজের প্রস্তাব দিলে কিশোরী বিষয়টি তার পরিবারকে জানায়। ওইদিন সন্ধ্যা ৬টার দিকে ধর্ষিতার পরিবার মাটিরাঙ্গা থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা করে। পুলিশ রাতে অভিযান চালিয়ে ওই দুই আসামিকে গ্রেফতার করে।

বুধবার, নভেম্বর ৯, ২০১৬

About admin

Check Also

আরো ১৩০০ পর্ন সাইট বন্ধ করা হবে: তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী!

ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তফা জব্বর বলেছেন, আরো ১ হাজার ৩১৪টি পর্ন সাইট বন্ধের উদ্যোগ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *